মেনু নির্বাচন করুন

শ্রীশ্রী অমৃতধাম (গুপ্ত বৃন্দাবন) (ও কোকদণ্ডী ঋষিধাম)

 


০৫কালীপুর ইউনিয়নটি হচ্ছে ঋষি সাধু সন্যানাশি ও ব্রম্মচারীদের স্থান

শ্রীশ্রী অমুতধাম (গুপ্ত বৃন্দাবন) ও কোকদণ্ডী ঋষিধাম

শ্রীশ্রী অমুতধাম (গুপ্ত বৃন্দাবন)

প্রতিষ্টাতা- শ্রীমৎ স্বামী অমৃতলাল গোস্বামী।

 পিতা-মৃত-কালা চাঁদ গোস্বামী,

মাতা-মৃত-মায়াদেবী গোস্বামী।  আভির্বাভ – কলিকাতার উত্তর পরগোনা জিলার হজ্জতুহ গ্রামে জন্মগ্রহন করেন। তিনি শৈশব হইতে সংসার বিরাগী ছিলেন। সাধর ভোজন হিমালয়ের গৌমুখী তীর্থ। তিনি সিদ্ধি লাভের পর দৈবাদেশে অষ্টাদশ শতাব্দীর শেষে কালীপুর গ্রামে প্রন্ডাপ বজ্জিত অনচলে চট্টগ্রামের বাঁশখালী জেলার অন্তগর্ত কালীপুর  এক পর্যস্পত গুরুর নিদিষ্ট স্থান লাভ করিয়া কলির তারক ব্রম্ম হরির নাম প্রচারে মননিবাশ করেন। চট্টলে হরিনাম প্রচারে মননিবাশ করেন। তিনি বাংলাদেশের ঋষিধাম ও ঋষিকুম্ভের প্রতিষ্টাতা শ্রীমৎ স্বামী অদ্বৈতানন্দ পুরী মহারাজের প্রথম গুরু ছিলেন। ততা বংশ গুরু ছিলেন। তিনি ১৯১৪খ্রিঃ অলোকিক ভাবে ইহলিলা বংশ বরণ করেন। বর্তমানে পৌরোহিত আছেন শ্রীমৎ স্বামী কৃষ্ণাননান্দ পুরী, অবিভাব, ১৯৩৫ খ্রিঃ ০৫নং কালীপুর ইউনিয়নের পালেগ্রাম গ্রামে জন্ম গ্রহন করেন। যোগাযোগ-চট্টগ্রাম শহর থাকে যে কোন বাস বা সিএনজি করে এসে কালীপুর হটতকী তলা নেমে ৪০গজ পশ্চিমে শ্রীশ্রী অমুতধাম (গুপ্ত বৃন্দাবন)

 

 

 

কোকদণ্ডী ঋষিধাম

 প্রতিষ্টাতা  শ্রীমৎ স্বামী অদ্বৈতানন্দ পুরী মহারাজ।

  স্থাপিত-১৯৪৮ইং।  গ্রাম-বাণীগ্রাম,   উপজেলা-বাঁশখালী,   জেলা-চট্টগ্রাম।   শ্রীমৎ স্বামী অদ্বৈতানন্দ পুরী মহারাজ। পৌরোহিত আছেন শ্রীমৎ স্বামী সুদর্শনান্দ পুরী মহারাজ্জী।  শ্রীমৎ  স্বামী  অদ্বৈতানন্দ পুরী মহারাজ্জী বলেছেন (ঋষি যুগ নাই বলে না ভাবিও মনে আসিতেছে র্স্বানযুগ যুগ অবর্তনে) প্রতি ৩ বছর পরপর  ঋষি কুম্ভু মেলা হয়। দেশ বিদেশ থেকে আনেক লোক তীর্থ লাভ করতে আসেন।  যোগাযোগ- চট্টগ্রাম শহর থাকে যে কোন বাস বা সিএনজি করে এসে রামদাস মুন্সির বাজার, না হই কোকদণ্ডী  ঋষিধাম গেইটের সেমনে নামলে হবে পায়ে হেটে ২০গজ পূর্ব দিখে


Share with :

Facebook Twitter